1. [email protected] : b.m. altajimul : b.m. altajimul
  2. [email protected] : Gk Russel : Gk Russel
  3. [email protected] : Nazrul Islam : Nazrul Islam
  4. [email protected] : Md Salim Reja : Md Salim Reja
  5. [email protected] : Kamrul islam rimon : Kamrul islam rimon
  6. [email protected] : Torik Hossain Bappy : Torik Hossain Bappy
কলাপাড়ায় নব নির্বাচিত নারী ভাইস চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন, আমি স্বাভাবিক চলাফেরায়ও ভয় পাচ্ছি - শিক্ষা তথ্য
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ১১:৫২ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
শাহজাদপুরে কোটা বিরোধী আন্দোলনের প্রতিবাদে মুক্তিযোদ্ধারা মাঠে নামলেন এই প্রথম জানালেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন নির্বাচন থেকে সরে যেতে পারেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত লক্ষ্মীপুরে কিশোর গ্যাংয়ের হামলায় শিক্ষকের ছেলে আহত পাগলায় রাধাগোবিন্দ মন্দিরের দেবোত্তর সম্পত্তি রক্ষার্থে মানববন্ধন পটিয়ায় এরশাদের মৃত্যু বার্ষিকী আলোচনা সমাবেশে- নুরুল ইসলাম কমিশনার এরশাদ ছিলেন উন্নয়নের রুপকার  রাজধানীসহ সারাদেশে ২২৯ প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন বৃহস্পতিবার সারাদেশে ‘কমপ্লিট শাটডাউন’ কর্মসূচি ঘোষণা আগামীকাল রাউজানে ১ লাখ ৮০ হাজার চারা রোপন করা হবে জাবিতে পুলিশের সঙ্গে শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ চলছে

কলাপাড়ায় নব নির্বাচিত নারী ভাইস চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন, আমি স্বাভাবিক চলাফেরায়ও ভয় পাচ্ছি

সংবাদদাতা :
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ১৬ জুন, ২০২৪
  • ২৯ বার দেখা হয়েছে
filter: 0; fileterIntensity: 0.0; filterMask: 0; captureOrientation: 0; brp_mask:0; brp_del_th:null; brp_del_sen:null; delta:null; module: photo;hw-remosaic: false;touch: (-1.0, -1.0);sceneMode: 8;cct_value: 0;AI_Scene: (-1, -1);aec_lux: 0.0;aec_lux_index: 0;albedo: ;confidence: ;motionLevel: -1;weatherinfo: null;temperature: 43;
কলাপাড়া (পটুয়াখালী) সংবাদতা ।। আমার বাবা আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে একাধিকবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য ছিলেন। আমি এখন একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি। অথচ এই আমি এখন নিজেকে নিয়ে চরমভাবে শঙ্কিত। আমি দুশ্চিন্তা করছি, কোন সময় দুস্কৃতিকারীরা আমার ওপর হামলা চালায়। আমি স্বাভাবিক চলাফেরায়ও ভয় পাচ্ছি। আমার কর্মী নজরুল খন্দকারকে গ্রেপ্তার, পরবর্তিতে কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) রহস্যজনক আচরণ এবং তাঁর অপসারণের প্রতিবাদে যেসব কর্মসূচি পালিত হয়েছে সেসব কারণে আমি এমন উদ্বেগ প্রকাশ করছি। পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিনা পারভীন সংবাদ সম্মেলন করে এসব কথা বলেন। শনিবার(১৫ জুন) দুপুর একটার সময় তাঁর কলাপাড়া পৌর শহরের বাসভবনে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।  শাহিনা পারভীন গত ৫ জুন অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে দ্বিতীয় বারের মতো নারী ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি ভারপ্রাপ্ত উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। তাঁর বাবা পটুয়াখালী-৪ (কলাপাড়া-রাঙ্গাবালী) আসনের আওয়ামী লীগ থেকে একাধিকবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য ছিলেন। শাহিনা পারভীন তাঁর লিখিত বক্তব্যে বলেন, সেদিন নীলগঞ্জ ইউনিয়নের পাখিমারা বাজারে অবস্থিত আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে হামলা বা ভাঙচুরের কোনো ঘটনা ঘটেনি। আবদুর রহমান তালুকদার নামে আওয়ামী লীগের নেতা পরিচয় দেয়া এক লোক পাখিমারা বাজারের আওয়ামী লীগ কার্যালয় ভাঙচুরের মিথ্যা নাটক সাজিয়ে আওয়ামী লীগ নেতাদের প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন। আমাকে এ ঘটনার সাথে জড়িত করে অপরাধী বানানোর চেষ্টা করছেন। শাহিনা পারভীন আরও বলেন, ওই ঘটনার পর আমি থানায় গিয়ে বসে থাকার পরেও তিনি (ওসি) কোনো রকম সৌজন্যতা দেখাননি। সেদিন আমি থানায় কর্তব্যরত কর্মকর্তা গোলাম মাওলার কাছে নজরুল খন্দকারকে তুলে আনার কারণ জানতে চাইলে তিনি জানান, পাখিমারায় আওয়ামী লীগ কার্যালয় এবং আবদুর রহমান তালুকদারের বাসায় ভাঙচুর হয়েছে। নজরুল সেই মামলার আসামী। ওই সময় রাত সোয়া একটা বাজে। অথচ তখন পর্যন্ত থানায় এ ঘটনায় কোনো এজাহার দাখিল হয়নি। কিন্তু দুঃখজনক হলো নজরুলকে আগেভাগেই আসামী হিসেবে সনাক্ত করা হয়েছে। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে শাহিনা পারভীন নির্বাচিত হওয়ার পর গত ৯ জুন বিকেলে নীলগঞ্জ ইউনিয়নের পাখিমারা বাজারে সাধারণ মানুষের সাথে দেখা করতে যায়। এ সময় সে পাখিমারা বাজারের আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে প্রবেশ করতে গেলে নীলগঞ্জ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাবেক সহসভাপতি আবদুর রহমান তালুকদার তাঁকে দেখে দ্রুত কার্যালয় বন্ধ করে চলে যায়। কিছুক্ষণ পর শাহিনা পারভীন ঘুরে এসে দেখেন আওয়ামী লীগ কার্যালয় খোলা এবং কার্যালয়ে আবদুর রহমান তালুকদার বসে আছেন। কেন কার্যালয় বন্ধ করে চলে গেলেন আবদুর রহমান তালুকদারের কাছে এ কথা জানতে চায় শাহিনা পারভীনের সাথে থাকা কর্মী-সমর্থকরা। এ নিয়ে আবদুর রহমান তালুকদারের সাথে শাহিনা পারভীনের কর্মী-সমর্থকদের কথা কাটাকাটি এবং এক পর্যায়ে হাতাহাতি হয়।
এ ঘটনার খবর শুনে কলাপাড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। সেখান থেকে নজরুল খন্দকার নামে একজনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরবর্তিতে খবর পেয়ে নব নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান শাহিনা পারভীন এবং তাঁর ভাই আবদুল্লাহ আল ইসলাম কলাপাড়া থানায় উপস্থিত হয়ে নজরুলকে কেন আটক করা হয়েছে তা জানতে চায়। পরবর্তিতে তাঁরা নজরুলকে আটক করার প্রতিবাদে কলাপাড়া থানার সামনে রাতভর অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। ১০ জুন সকালে তাঁরা কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) প্রত্যাহার করার দাবিতে কলাপাড়া পৌর শহরে ঝাড়ু মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে। এতে কয়েকশ নারী-পুরুষ অংশ নেয়। স্থানীয়দের সাথে আলাপ করে আরও জানা যায়,  গত ১২ জুন নীলগঞ্জ ইউনিয়নের পাখিমারা বাজারে শাহিনা পারভীন তাঁর কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে ভাঙচুরের সাঁজানো ঘটনা ও মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে মানববন্ধন করার কর্মসূচি পালন করতে পাখিমারা বাজারে উপস্থিত হয়। এ সময় আবদুর রহমান তালুকদার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের এনে পাখিমারা বাজার এলাকায় জড়ো করেন। তাঁদের পাল্টা আয়োজন দেখে শাহিনা পারভীন পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি স্থগিত করে চলে যায়। শাহিনা পারভীন কর্মসূচি স্থগিত করলেও আবদুর রহমান তালুকদারের লোকজন তাঁর চাচাত ভাই আলাউদ্দিন মিয়ার পরিচালিত বাস কাউন্টার ও তাঁর বাসায় হামলা চালিয়ে মহিলাদের মারধর ও শ্লীলতাহানীর চেষ্টা করে। নব নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলেন, এ বিষয়ে থানায় মামলা করতে গেলে কলাপাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (দ্বিতীয় কর্মকর্তা) গোলাম মাওলা আমাদের মামলা নেয়নি। আবদুর রহমান তালুকদারের কাছে এ নিয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আসলে ওই দিন নারী ভাইস চেয়ারম্যানের কর্মী-সমর্থকরা উদ্দেশ্য নিয়েই ঝগড়া বাজিয়েছে। তাঁর সাথে থাকা লোকজন আমার উপস্থিতিতে আমার ছোট ছেলেসহ কয়েকজনকে মারধর করেছে। এক পর্যায়ে দলীয় কার্যালয়ের চেয়ার ভাঙচুর করেছে। এরপর আমার বাড়িতে গিয়ে ওইসব লোকজন হামলা চালিয়েছে। কলাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান আবদুল মোতালেব তালুকদার এ প্রসংগে বলেন, ‘এ ঘটনার পর উপজেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আমি তদন্তদলের প্রধান হিসেবে অপর সদস্যদের নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে সব কিছু যাচাই করেছি। দলীয় কার্যালয়ের সামনে যা ঘটেছে, তার সত্যতা পেয়েছি। তবে আবদুর রহমান তালুকদারের বাড়িতে যে হামলার কথা বলা হয়েছে, তা স্থানীয়দের কাছে জানতে চেয়েছিলাম। স্থানীয়রা এরকম ঘটনা দেখেনি বলে জানিয়েছে। আমরা দলগতভাবে বিষয়টি দেখতেছি। কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহমেদ জানান,আমার উপর আনিত অভিযোগ সম্পুর্ন মিথ্যা। ‘নারী ভাইস চেয়ারম্যান তাঁর নিরাপত্তা নিয়ে যে শঙ্কিত, তা তিনি আমাদের জানান নি। আমরা তো দেখছি তিনি স্বাভাবিকভাবে সব কার্যক্রম করছেন।’ এ ছাড়া তিনি আরও বলেন, ওই দিনের ঘটনায় এখন পর্যন্ত একজনকে আটক করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:০০
  • ১২:০৮
  • ৪:৪৩
  • ৬:৫১
  • ৮:১৪
  • ৫:২২
শিক্ষা তথ্য পত্রিকার কোন লেখা, ছবি বা ভিডিও কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: সাইবার প্লানেট বিডি