1. [email protected] : Gk Russel : Gk Russel
  2. [email protected] : Nazrul Islam : Nazrul Islam
  3. [email protected] : pbangladesh :
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ১২:৫১ অপরাহ্ন

কলাপাড়ায় নিয়োগ সংক্রান্ত অনিয়মের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন

সংবাদদাতা :
  • আপডেটের সময় : বুধবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ২৬ বার দেখা হয়েছে
কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি :  পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় চার লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা ঘুষ নিয়েও নিয়োগ দেয়নি। পরে টাকা ফেরত দেয়াসহ নিয়োগ সংক্রান্ত গুরুতর অনিয়মের অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছে নিয়োগ প্রার্থী পাঁচ সদস্য। কলাপাড়া প্রেসক্লাবের ইঞ্জিনিয়ার তৈহিদুর রহমান লিনায়তনে বুধবার (২৪ জানুয়ারী) সকাল এগারোটার দিকে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। কলাপাড়া প্রেসক্লাবের সভাপতি মো.হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে পূর্ব মধুখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আয়া পদে নিয়োগ প্রার্থী মোসা. সোনিয়া বেগম। তিনি তার লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করে পূর্ব মধুখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অফিস সহায়ক,আয়া ও পরিচ্ছন্নতা কর্মী এই তিনটি পদে নিয়োগ দেয়ার জন্য পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। এ বিঞ্জপ্তির পর তারা আবেদন করে। এনিয়োগ পরীক্ষা হবার কথা ছিলো গত বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি। এর আগে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.আলাম হোসেন প্রতি পদের জন্য তিন থেকে তিন লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা দাবি করে। প্রার্থীরা এ টাকা না দেয়ায় প্রধান শিক্ষক নিয়োগ প্রক্রিয়া বাতিল করে। ফলে কিছু পরীক্ষার্থী নিয়োগ পরিচালনা কতৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে। মামলা নম্বর ১১৭/২৩। পরে পুনঃরায় গত ২১ অক্টোবর নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ নির্ধারন করে। পরীক্ষার এক দিন আগে প্রধান শিক্ষক পরীক্ষার্থীদের জন প্রতি পাঁচ লক্ষ টাকা দাবি করে। ওই সময় সোনিয়া বেগম চার লক্ষ টাকা দিলেও তাকে নিয়োগ দেয়নি। নিয়োগ দেয়া হয়েছে সভাপতি মো. বশির আহম্মেদ ও প্রধান শিক্ষক মো. আলাম হোসেনের মনোনীত প্রার্থীদের। পরে তাকে ঘুষের তিন লক্ষ টাকা ফেরত দিলেও বাকি এক লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকা ফেরত দেয়নি। অপরদিকে পূর্ব মধুখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সহ ৬ জনের বিরুদ্ধে নালিশি মামলা আমলে নিয়ে ওসি, কলাপাড়াকে এজাহার গন্যে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। রবিবার কলাপাড়া উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. গোলাম মোস্তফা’র নালিশি মামলা দায়েরের পর কলাপাড়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আশীষ রায়ের আদালত এ আদেশ প্রদান করেন। আদালতের বেঞ্চ সহকারী মো.কাইয়ুম এ আদেশের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। মামলায় পূর্ব মধুখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি মো.বশির আহম্মেদ (৫৭), প্রধান শিক্ষক মো.আলম হোসেন (৫৫), সহকারী প্রধান শিক্ষক  মো.আক্তার হোসেন (৪৫), মো.শাহিন হাওলাদার (৪২), মো.হাসান (৪০), মো.সাইদুর রহমান (৩৫) সহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।
মামলা সূত্রে জানা যায়, পূর্ব মধূখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অফিস সহায়ক, আয়া ও পরিছন্নতা কর্মীর পদ খালী হওয়ায় নিয়োগের জন্য আসামীরা তাহাদের মনগড়া বিজ্ঞপ্তি দিয়া বাদীর অগোচরে বিগত ২১ অক্টোবর ২০২৩ তারিখ লিখিত পরীক্ষা গ্রহণ করেন। পরে ২১ ডিসেম্বর দুপুর অনুমান ১২:০০ ঘটিকার সময় আসামীরাসহ অজ্ঞাতনামা ৪/৫ জন আসামী মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসে প্রবেশ করে উল্লেখিত নিয়োগ পরীক্ষায় জাল জালিয়াতি ও প্রতারণার মাধ্যমে তৈরীকৃত ফলাফল ও রেজুলেশনে বাদীকে স্বাক্ষর করতে বললে বাদী স্বাক্ষর করিতে অস্বীকৃতি জানায়। পরবর্তীতে আসামীরা অপরাধ জনক বিশ্বাস ভঙ্গ করে জাল নিয়োগপত্র সৃজন করে পূর্ব মধূখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে অফিস সহকারী, আয়া, পরিছন্নতাকর্মী নিয়োগ প্রদান করেন। এ ব্যাপারে কলাপাড়া থানার ওসি মো.আলী আহম্মেদ জানান, মামলার বিষয়ে জেনেছি। এ ব্যাপারে তদন্ত করে আইনী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:২২
  • ১২:০২
  • ৪:৩০
  • ৬:২৪
  • ৭:৪০
  • ৫:৩৭
শিক্ষা তথ্য পত্রিকার কোন লেখা, ছবি বা ভিডিও কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: সাইবার প্লানেট বিডি