মঙ্গলবার , মে ২৬ ২০২০
সংবাদ শিরোনাম
Home » দূর্ঘটনা » গলাচিপায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চার সন্তানের জননীকে ধর্ষন

গলাচিপায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চার সন্তানের জননীকে ধর্ষন

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার গোলখালী এলাকায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে চার সন্তানের জননীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সুষ্ঠ বিচারের আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরছে ওই নারী।

সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সেকেন্দার হাওলাদারের লম্পট পুত্র আনোয়ার হাওলাদার একই গ্রামের আঃ ছালাম বিশ্বাসের মেয়ে ও ইমাম হোসেনের সাবেক স্ত্রী ওই চার সন্তানের জননীকে দীর্ঘদিন ধরে বিভিন্ন কু-প্রস্তাব ও নানা প্রলোভন দেখিয়ে আসছিল। একপর্যায়ে তাদের দু’জনার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। লম্পট আনোয়ার বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই নারীর সাথে বেশ কয়েকবার জোর করে শারীরিক সম্পর্ক করে। সম্প্রতি চার সন্তানের জননী ওই নারীকে নানা ভয়ভীতি দেখিয়ে তার স্বামীকে তালাক দেওয়ায়। পরে ওই নারী আনোয়ারকে বিয়ে করার জন্য চাপ প্রয়োগ করেন। কিন্তু তখন তাকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে লম্পট আনোয়ার।

ওই নারীর মা বলেন, আমার মেয়ের সরলতার সুযোগ নিয়ে আনোয়ার একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। এখন বিয়ে করতে চায় না। আমরা সুবিচারের আশায় সমাজ পতিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছি কিন্তু কেউ এগিয়ে আসছে না। এদিকে, কয়েক দিন আগে ওই নারী বিয়ের দাবিতে লম্পট আনোয়ারের বাড়িতে এসে হাজির হন। পরে স্থানীয় কিছু চিন্হিত সন্ত্রাসীদের দিয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়ি থেকে জোরপূর্বক বের করে দেওয়া হয়।

এবিষয়ে গলাচিপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মনিরুল ইসলাম বলেন এধরণের কোন অভিযোগ এখন পর্যন্ত পাইনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও সংবাদ

প্রথম আলো “বন্ধুসভা”র উদ্দোগে ৯৫ জন দূর্গত মানুষকে খাদ্যসামগ্রী প্রদান

মোয়াজ্জেম হোসেন, পটুয়াখালী।। পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় “প্রথম আলো বন্ধুসভা’র” উদ্যোগে পৌর শহর ও টিয়াখালী ইউনিয়নের ৯৫ …