শিক্ষা তথ্য

তালতলীতে মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণ, অভিযুক্ত গ্রেফতার

তালতলী বরগুনা প্রতিনিধিঃ বরগুনার তালতলীতে ৭ শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। অভিযুক্ত কামাল হোসেন (২৫) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (০৮ মার্চ) ১১টার দিকে উপজেলার গেন্ডামারা এলাকায় মুগডাল ক্ষেতে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত কামাল উপজেলার চন্দনতলা এলাকার মোতালেব মুন্সীর ছেলে।

পরিবার ও থানা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ছোটবগী ইউনিয়নের গেন্ডামারা গ্রামের ৭ শ্রেণির এক স্কুল ছাত্রীকে পাশবর্তী এলাকার মোতালেব মুন্সীর ছেলে কামাল হোসেন বিভিন্ন সময় উত্যক্ত করতো। এরই জের ধরে আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টার দিকে ওই ছাত্রীর মা তার মামা বাড়ি থেকে বাড়ি ফেরার সময় মাকে এগিয়ে নিতে যাওয়ার পথিমধ্যে লাম্পট কামাল পিছু নেয়। কিছু দূর গেলে স্কুল ছাত্রীকে মুগডাল ক্ষেতে নিয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এসময় মেয়েটির ডাক-চিৎকারে ধর্ষকরা দৌড়ে পালিয়ে যায়। পরে মেয়ের মা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করলে তাতক্ষণিক পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেন।

ঔ ছাত্রীর মা বলেন, ঐ ছেলে প্রায়ই আমার মেয়েকে উত্যক্ত করে আসছে। ঘটনার দিন আমার মেয়ে আমার সাথে থাকা ব্যগ নিতে আসতে বলি। পথিমধ্যে আমার মেয়েকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

তালতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান মিয়া বলেন ধর্ষণের বিষয়ে একটি মামলা হলে। অভিযান চালিয়ে ধর্ষককে আটক করা হয়েছে। ঔ ছাত্রীকে মেডিকেল পরিক্ষার জন্য বরগুনা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন