মঙ্গলবার , মে ২৬ ২০২০
সংবাদ শিরোনাম
Home » দূর্ঘটনা » নওগাঁ সদর হাসপাতালে নার্সদের অবহেলায় এক নবজাতকের করুন মৃত্যু’র অভিযোগ

নওগাঁ সদর হাসপাতালে নার্সদের অবহেলায় এক নবজাতকের করুন মৃত্যু’র অভিযোগ

নওগঁ প্রতিনিধিঃ নওগাঁ সদর আধুনিক হাসপাতালে নার্সদের অবহেলায় এক নবজাতকের করুন মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ঐ শিশু এবং হাসপাতালে অন্য রোগিদের স্বজনদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এ ব্যপারে শিশুটি’র পিতা কর্তৃক সদর মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে। নবজাতকের পরিবার সুত্রে জানা গেছে গত বৃহষ্পতিবার বেলা সাড়ে ৩টায় নওগাঁ সদর উপজেলাধীন কিত্তর্ীপুর ইউনিয়নের হরিরাম পুর গ্রামের জহুরুল ইসলাম ও বানু বেগম দম্পত্তির একটি পুত্র সন্তান ভুমিষ্ঠ হয়। ভুমিষ্ঠ হওয়ার পর শিশুটির শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে ঐ দিনই সন্ধ্যায় নওগাঁ সদর হাসপাতালে শিশু ওয়ার্ডে ভর্ত্তি করা হয়। চিকিৎসার পর শিশুটির অবস্থা কিছুটা উপশম লক্ষ করে পিতা মাতা স্বস্তি বোধ করেন। রাতে শিশুটির ফটোথেরাপী দেয়া হয়। এই ফটো থেরাপী মেশিনটি একটি নির্দিষ্ট সময় পর খুলে দিতে হয়। নির্দিষ্ট সময় পার হয়ে গেলে শিশুটির শরীর পুড়ে যেতে শুরু করে। শরীরের একাংশ কালো হতে থাকে। এই অবস্থা দেখে শিশুর পিতা জুহুরুল ইসলাম, নানী রওশন আরাসহ অন্য রোগিদের অভিভাবকরা কর্তব্যরত নার্সদের ডাকাডাকি করতে থাকে। কিন্তু নার্সরা তাদের ডিউটিকক্ষে ঘুমাতে থাকে। অনেক ডাকা ডাকি করেও তাদের কোন সাড়া মিলে না। ভিতর থেকে তারা বলতে থাকে সকাল ৬টার আগে তারা আসবেনা। শিশুটির পিতা এবং নানী নার্সদের জোরহাত করে অনুরোধ করেও তারা দরহা খোলে নি। অবশেষে ফুটফুটে এই পুত্র সন্তানটি নির্মমভাবে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। এ সময় ঐ ওয়ার্ডে রোজিনা ও তানিয়া নামের সিনিয়র ষ্টাফ নার্স দায়িত্বরত ছিলেন বলে জানা গেছে। এই অবস্থা দেখে হাসপাতালে চিকিৎসারত অন্য রোগিদের স্বজনরাও ক্ষিপ্ত হয়ে পড়েন। সদর হাসপাতালের আর এমও ডাঃ মুনির আলী আকন্দকে মোবাইল ফোনে জানালে তিনি এ ব্যপারে দেখছেন বলে জানান। এদিকে ঐ নবজাতকের পিতা নওগাঁ সদর মডেল হাসাপাতালে একটি মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানিয়েছেন।

আরও সংবাদ

পটুয়াখালীতে ঘূর্ণিঝড় “আম্পান” পরবর্তী ক্ষয়-ক্ষতি নিরূপণে পর্যালোচনা সভা

মোয়াজ্জেম হোসেন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি।। পটুয়াখালীতে ঘূর্ণিঝড় ‘আম্পান’ পরবর্তী ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ সংক্রান্ত পর্যালোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। …