সোমবার , মে ২৫ ২০২০
সংবাদ শিরোনাম
Home » অর্থনীতি » বাণিজ্যিক উৎপাদনে কয়লাভিক্তিক পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র

বাণিজ্যিক উৎপাদনে কয়লাভিক্তিক পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র

মোয়াজ্জেম হোসেন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি।।

পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় কয়লাভিত্তিক পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের প্রথম ইউনিট বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন শুরু করেছে। এর মধ্য দিয়ে দেশের অন্যতম বড় একটি বিদ্যুৎ কেন্দ্র বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদনে এলো। বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে পাঁচ টায় এ প্লান্ট থেকে জাতীয় গ্রীডে ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ যোগ হয়েছে। উৎপাদনে যাওয়ার আগে সফলভাবে সকল পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জাতীয় গ্রীডে সরবরাহ করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিসিপিসিএল’র উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী  মো. পিঞ্জুর রহমান।

বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সূত্রে জানান, নর্থ-ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি লিমিটেড এবং চীনের ন্যাশনাল মেশিনারি পোর্ট অ্যান্ড ইম্পোর্ট কোম্পানি-সিএমসি যৌথ মালিকানায় পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় পায়রা বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকায় দু’টি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করা হচ্ছে। প্রতিটি কেন্দ্রে ৬৬০ মেগাওয়াট করে উৎপাদন ক্ষমতা রয়েছে। যার একটি উৎপাদন শুরু করলো। সব মিলিয়ে দেশের সবচেয়ে বড় কয়লাভিত্তিক এই বিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে ১৩২০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপন্ন হবে।

এ কেন্দ্রটি আমদানি করা কয়লা দিয়ে চলবে। আগামী মাসে দ্বিতীয় ইউনিটও উৎপাদনে আসার কথা রয়েছে। এই কেন্দ্র থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ প্রথমে যাবে গোপালগঞ্জে। তারপর সেখান থেকে দেশের অন্যান্য জেলায় বিদ্যুৎ সরবরাহ করা হবে। আলট্রা সুপার ক্রিটিক্যাল প্রযুক্তিতে নির্মাণ করা হয়েছে পায়রা তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র। গত ১৩ জানুয়ারি পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের এই প্রথম ইউনিট পরীক্ষামূলকভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ শুরু করা হয়ে ছিলো।

পায়রা তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বিসিপিসিএল’র উপ বিভাগীয় প্রকৌশলী মো. পিঞ্জুর রহমান জানান, করোনাভাইরাসের মধ্যে এটি অনেক বড় একটি সুখবর। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই আমরা প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কাজ শেষ করতে পেরেছি। এতেই প্রমাণিত হয় উন্নয়নের গতিধারা থেমে নেই।

 

আরও সংবাদ

“দৈনিক শিক্ষাতথ্য” পরিবারের পক্ষ থেকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছাজ্ঞাপন

সম্পাদকীয়- এবার এক ব্যতিক্রমী ঈদ উৎযাপন করতে যাচ্ছে সারা বিশ্বের মুসলিম সম্প্রদায়… করোনা প্রাদুর্ভাবের মধ্যে …