1. [email protected] : Gk Russel : Gk Russel
  2. [email protected] : Nazrul Islam : Nazrul Islam
  3. [email protected] : pbangladesh :
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৯:৫৯ পূর্বাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
সিরাজগঞ্জ উল্লাপাড়ায় ইউপি সদস্যর ডাব চুরি” আলোচনা সমালোচনার ঝড় বীর মুক্তিযোদ্ধা সাবেক অতিরিক্ত সচিব মোহাম্মদ ইসহাক এর দাফন সম্পন্ন শুভ জন্মদিন শ্যামনগরে শিক্ষার্থীকে ধর্ষনের অভিযোগে আটক ১; শিক্ষার্থীর চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন ওসি শ্রীপুরে আদ দাওয়াহ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের আয়োজনে ইসলামী প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত দেশবাসীকে নবর্বষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন-আইয়ুব আলী ফাহিম নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশ প্রেস ক্লাব পরশুরাম থানা মহানগর এর আহবায়ক পটিয়ায় পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত নেতা-কর্মীদের উজ্জীবিত করতে ঈদুল ফিতরে সৌজন্যে সাক্ষাৎ আমতলীতে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থককে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার -৫

বোদায় নিবন্ধন সনদ ছাড়া শিক্ষক নিয়োগ, সংবাদ প্রকাশের পর তদন্ত শুরু

সংবাদদাতা :
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ৭ মার্চ, ২০২৪
  • ৭৭ বার দেখা হয়েছে
পঞ্চগড় প্রতিনিধি:পঞ্চগড়ের বোদায় নিবন্ধন সনদ ছাড়া শিক্ষক নিয়োগ দেয়ার অভিযোগে সংবাদ প্রকাশের পর, জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোহাম্মদ সাইফুল মালেক তদন্ত শুরু করেছেন।১৯ ডিসেম্বর বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশিত হয়। পরে জেলা প্রশাসক ১২ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা অফিসারকে তদন্তের নির্দেশ দেন।বৃহস্পতিবার শিক্ষা অফিসার জানান,তদন্ত শুরু করেছি যথা সময়ে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে। সংবাদে উল্লেখ করা হয় পঞ্চগড়ের বোদায় নিবন্ধন সনদ অর্জনের আগেই মো.কাওছার আলী নামের এক ব্যক্তিকে অবৈধ উপায়ে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ দেয়া হয়েছে বলরামহাট দ্বি মুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে। কাওছার আলী বোদা উপজেলার বটতলী চেংমারী এলাকার মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে। সম্প্রতি এ তথ্য উঠে আসে প্রতিবেদকের অনুসন্ধানে। জানা যায়,মো.কাওছার আলী ওই প্রতিষ্ঠানে সহকারী গ্রন্থাগারিক পদে নিয়োগ নেয় ৩০ আগস্ট ২০১০ সালে,পরবর্তীতে ১০ জুলাই ২০১১ সালে পদত্যাগ করেন এ পদ থেকে।পরে তিনি ৩১ অক্টোবর ২০১১ সালে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ নিয়ে  ২৪ ডিসেম্বর ২০১২ সাল থেকে তিনি এমপিওর সুযোগ সুবিধা বা বেতন গ্রহণ করতে থাকেন। কিন্তু ওই শিক্ষকের সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ে নিবন্ধন সনদ ১১ তম,যার রেজাল্ট হয়েছে ৯ মার্চ ২০১৫ সালে। অভিযুক্ত শিক্ষক কাওছার আলী মুঠোফোনে ২৭ আগস্ট ২০১৫ সালে সহকারী শিক্ষক পদে নিয়োগ পেয়েছেন বলে তিনি জানান।কিন্তু তৎকালীন প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক অক্ষয় কুমার রায় ২০১৪ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পালনকালে তিনি কোন নিয়োগ দেননি বলে জানিয়েছেন। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক নিতাই চাঁদ বর্মন জানান,আমি সম্প্রতি প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব পেয়েছি।যতটা জানি কাওছার আলী নামের ওই শিক্ষক সহকারী শিক্ষক হিসেবে ২০১১ সালে নিয়োগ পেয়েছেন।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৪:২৮
  • ১২:০৩
  • ৪:৩০
  • ৬:২২
  • ৭:৩৭
  • ৫:৪১
শিক্ষা তথ্য পত্রিকার কোন লেখা, ছবি বা ভিডিও কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: সাইবার প্লানেট বিডি