সোমবার , জানুয়ারি ১৮ ২০২১
সংবাদ শিরোনাম
Home » গণমাধ্যম » হাজী সিরাজউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রকাশিত সংবাদের বিপরীতে  প্রেসব্রিফিং

হাজী সিরাজউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রকাশিত সংবাদের বিপরীতে  প্রেসব্রিফিং

শিক্ষা তথ্য: নারায়ণগঞ্জ বন্দরে হাজী সিরাজউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ে নানা অনিয়ম,দূর্নীতি চলছে শিরোনামে বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে প্রেস ব্রিফিং করেন প্রতিষ্ঠানে গভর্নিংবডির সভাপতি হুমায়ুন কবির মৃধা। বুধবার ১৩জানুয়ারী সকাল ১০টায় নবীগঞ্জ হাজী সিরাজউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রশাসনিক কক্ষে গনমাধ্যম কর্মীদের সাথে তিনি এ প্রেসব্রিফিং করেন।

 

এ সময় প্রেস ব্রিফিংকালে তিনি বলেন,বন্দরের স্বনামধন্য বিদ্যাপিঠ হাজী সিরাজউদ্দিন মেমোরিয়াল উচ্চ বিদ্যালয়ে নানা অনিয়ম,দূর্নীতির চলছে শিরোনামে নারায়ণগঞ্জ থেকে প্রকাশিত বিভিন্ন স্থানীয় পত্রিকায় প্রকাশ করে যা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীণ.বানোয়াট ও অসত্য। এখানে বলা হয় যে,সভাপতি ১৪বছর ধরে সভাপতির পদ দখল করে আছে অথচ প্রতিষ্ঠানের সকল সদস্যদের সম্মতিতে আমি বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত সভাপতি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকদের নামে কোচিং বানিজ্য,ভর্তি বানিজ্যের অভিযোগ তোলা হয়। অথচ যার কোন ভিত্তি নাই।

 

করোনা সংক্রমনকালে স্কুল প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে কোচিং বানিজ্যের প্রশ্নই আসেনা। শিক্ষক নিয়োগ বানিজ্যের কথা প্রকাশ করা হয়েছে কিন্তু আমরা নিয়মতান্ত্রিকভাবে ডিজি মহোদয়ের প্রতিনিধি জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা
অফিসের প্রতিনিধিগন উপস্থিত থেকে ২৭জন প্রার্থীর মধ্যে পরিক্ষার মাধ্যমে উত্তীর্ণ প্রথম স্থান অধিকারী শিক্ষককে নিয়োগ দিয়ে থাকি। এখানে অর্থের মাধ্যমে নিয়োগের কোন সুযোগ নাই। বিদ্যালয় ফান্ডের অর্থ আতসাত ও সিলেবাস গাইড অন্তভূক্ত করনের মাধ্যমে উপঢৌকন নেয়ার গুরুতর অভিযোগের কথাও প্রকাশ করে বিভিন্ন পত্রিকায় অথচ আমরা প্রতি মাসে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ব্যয়ের স্টেটমেন্ট তৈরী করা হয়। যার মধ্যে বিন্দু পরিমান কোন অনিয়ম নাই।

 

বিদ্যালয়ে প্রতিমাসে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার ভিজিট করে থাকে। বিদ্যালয়ে কমিটির সভায় সিদ্ধান্ত পাশ করানো কাজগুলো কমিটির সদস্য ও শিক্ষকদের সমন্বয়ে হয়ে থাকে। এখানে আরো বলা হয় ম্যানেজিং কমিটির মিটিংয়ে ৩৫ হাজার টাকা আপ্যায়ন বিল হয় প্রকাশ করা হয় যা অবান্তর নিউজের বহি:প্রকাশ। কেননা,একটি মিটিংয়ে এত টাকা আপ্যায়ন বিল হবে এটা কল্পনাপ্রসুত যা বাস্তবতার সাথে কোন মিল নাই। সরকারী অডিটের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ টাকা প্রদান ও ভাউচার করন যা গনমাধ্যমে উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে প্রকাশ করেছে তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীণ।

 

সর্বোপরি একটি স্বার্থাম্বেসী মহল জাতির বিবেক গনমাধ্যমকে ভূল,অসত্য তথ্য দিয়ে স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানের সুনামক্ষুন্ন ও সভাপতি,প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্য শিক্ষকদের প্রশ্নবিদ্ধ করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। আমি এই ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

শেয়ার করুন

আরও সংবাদ

ডক্টরস’ এন্ড মেডিকেল/ডেন্টাল স্টুডেন্টস এর আয়োজনে পিঠা উৎসব পালণ

 স্টাফ রিপোর্টারঃ ডক্টরস’ এন্ড মেডিকেল/ডেন্টাল স্টুডেন্টস’ ফোরামের আয়োজনে শীতকালীন পিঠা উৎসব ২০২১ অনুষ্ঠিত হয়েছে। করোনাকালীন …