বৃহস্পতিবার , মে ২৮ ২০২০
সংবাদ শিরোনাম
Home » সারাদেশ » ঢাকা » ৫৬০০ পরিবারে ত্রাণ বিতরণ সহ মানবিক সহায়তায় ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা

৫৬০০ পরিবারে ত্রাণ বিতরণ সহ মানবিক সহায়তায় ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা

স্টাফ রিপোর্টারঃ নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৮নং ওয়ার্ড গোদনাইলের জনপ্রিয় কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা করোনা ভাইরাস পরিস্থিতিতে তার ওয়ার্ডের প্রত্যেকটি এলাকায় অস্বচ্ছল ও কর্মহীন পরিবারের মাঝে মোট ৫ হাজার ৬০০ পরিবারের মধ্যে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ সহ মানবিক সহায়তা করেছেন বলে জানাগেছে।

এছাড়াও তিনি ১০০ কেজি জীবাণুনাশক পাউডার, ৫০০ পিছ হ্যান্ডস্যানিটাইজার, ৩০০০ পিছ মাস্ক, ৩ শত হ্যান্ড গ্লোভস ও সচেতনতামূলক ৫ হাজার হ্যান্ড লিফলেট বিতরণ করেন। লকডাউন বাস্তাবায়নের জন্য ৮নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন মহল্লায় ১৫০ জন স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ দিয়েছেন। জনগণকে সচেতন করার জন্য এলাকায় মাইকিং এবং বিভিন্ন মসজিদে সরকারি বিভিন্ন নিয়ম কানুন মেনে চলার উপদেশ দেওয়া হয়। গত ২ এপ্রিল থেকে ৯ মে পর্যন্ত মোট ৩৯ হাজার কেজি চাল, ৩ হাজার কেজি ডাল, ২৭শত কেজি আলু, ১ হাজার ৪৫০ কেজি পেয়াজ, ১২৫০ লিটার তেল, ৫০০ কেজি লবন, ৫০০ পিছ সাবান, ২৫০০ পিছ মিষ্টি কুমড়া ও ৭০০ কেজি আটা বিতরণ করা হয়। প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল হতে প্রাপ্ত সিটি কর্পোরেশনের মাধ্যমে মোট চাল ২৫ হাজার ৯৫০ কেজি, ডাল ১ হাজার ২৪৬ কেজি, আলু ৭০০ কেজি ও শিশু খাদ্য ৫০ প্যাকেট বিতরণ করা হয়েছে। নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ সদস্য এ,কে,এম শামীম ওসমান সাহেবের পক্ষ থেকে ৬০০ প্যাকেট এবং দুস্থ মানুষের মাঝে খামের মাধ্যমে নগদ অর্থ প্রদান করা হয়। সর্বমোট ৫ হাজার ৬০০ পরিবারের মধ্যে ইতিমধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়েছে। ৬৫০ জন ওএমএস কার্ডের তালিকা প্রেরণ এবং ২ হাজার ৭২৭ জনের মানবিক সহায়তা কার্ডের জন্য আবেদন ফরম চলমান প্রক্রিয়ায় রয়েছে। করোনা ভাইরাস পরিস্থিতির কারণে ৮নং ওয়ার্ডে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা জানান। প্রত্যেকটি এলাকায় স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি, সুশীল সমাজ, সমাজকর্মী, শিক্ষক মন্ডলীসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের সমন্বয়ে সামাজিক কাজগুলো পরিচালনা করা হচ্ছে বলে জানা যায়। এছাড়া করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবা, ঔষধসহ যাবতীয় খরচ বহন এবং করোনায় আক্রান্ত মৃত ব্যক্তিদের দাফন ও সৎকারের ব্যবস্থা করেছেন কাউন্সিলর রুহুল আমিন মোল্লা। এজন্য তিনি বিভিন্ন এলাকায় উপ-কমিটিও গঠন করেছেন।

তিনি ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, সমাজে এক শ্রেণির লোক আছে যারা নিজের স্বার্থের জন্য সমাজের ভালো কাজগুলিকে বাধাগ্রস্থ করতে সবসময় লেগে থাকে এমন অবস্থায়ও তা দেখছি। তিনি আরও বলেন, চিহ্নিত সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ ও ভুমিদস্যুরা এই মহামারিতে ভালো কাজে অপপ্রচার চালাচ্ছে এবং সামাজিক ভাবে ভালো মানুষদের ক্ষতিগ্রস্থ করছে। যারা অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের সুস্থ ও সুন্দর পথে ফিরে আসার আহ্বান রইল।

আরও সংবাদ

হিলফুল ফুযুল শান্তি সংর্ঘের পক্ষ থেকে বন্দরবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা

শিক্ষা তথ্যঃ পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বন্দরবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন সামাজিক সংগঠন ‘হিলফুল ফুযুল’ শান্তি …