1. [email protected] : Gk Russel : Gk Russel
  2. [email protected] : Nazrul Islam : Nazrul Islam
  3. [email protected] : pbangladesh :
৬ ডিসেম্বর ভারত বাংলাদেশকে সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা উপলক্ষে আলোচনা সভা - শিক্ষা তথ্য
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৯:১১ অপরাহ্ন
সংবাদ শিরোনাম :
ন্যায়বিচার মানুষের মৌলিক অধিকার রংপুরে প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান বকশীগঞ্জের বাট্রাজোড়ে অগ্নিকাণ্ডে ৬ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই পটিয়ায় ব্যবসায়ীকে হত্যার হুমকি: থানায় অভিযোগ বাউফলে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় বঙ্গোপসাগরে সুস্পষ্ট লঘুচাপ, মাছধরা ট্রলার সমূহকে সাবধানে চলাচলের নির্দেশ ফুলপুরে এক হাজার পিচ ইয়াবা ট্যাবলেট সহ আমিনুল আটক না’গঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম’র রোগমুক্তি কামনায় দোয়া সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী চপলের সমর্থনে জাতীয় পার্টির উদ্যোগে নির্বাচনী সভা ছাতককে জেলা শহরে উন্নতি করার দাবীতে স্মারকলিপি প্রদান সুনামগঞ্জে নব নিয়োগপ্রাপ্ত ১২ জন সহকারী শিক্ষকদের বরণ অনুষ্ঠান সম্পন্ন

৬ ডিসেম্বর ভারত বাংলাদেশকে সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা উপলক্ষে আলোচনা সভা

সংবাদদাতা :
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৩২ বার দেখা হয়েছে
নিজস্ব সংবাদদাতা: ৬ ডিসেম্বর ভারত বাংলাদেশকে সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে ঘোষণা উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করেছে ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ সেন্টার নারায়ণগঞ্জ জেলা।
শনিবার (৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় নগরীর আলী আহাম্মদ চুনকা পাঠাগার ও মিলনায়তনে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ সেন্টার নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি মোঃ পারভেজ বেপারী’র সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ সেন্টারের উপদেষ্টা অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল আবদুর রশিদ। অনুষ্ঠানের উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- প্রসিডেন্ট এড. শুভাশীষ সমদ্দার। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আশালতা বৈদ্য। প্রধান অতিথি বক্তব্যে বলেন- ৬ ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে ভারত বাংলাদেশকে সার্বভৌম রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলে যে উত্তপ্ত পরিস্থিতি বিরাজ করছিলো সেই প্রেক্ষাপটে ভারতের এ স্বীকৃতি অনেক বেশী তাৎপর্যপূর্ণ ছিল। মুক্তিযুদ্ধে ভারত বাংলাদেশের বিপন্ন মানুষকে আশ্রয় দেওয়ার পাশাপাশী মুক্তিযোদ্ধাদের সব রকম সহযোগিতা করেছে এবং পাকিস্তানের কারাগারে বন্দি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে যাতে মুক্ত করা যায়। সে ব্যাপারেও দেশটির সরকার ছিল তৎপর। সে কারণেই প্রবাসী সরকার ভারতের স্বীকৃতি দেওয়ার বিষয়টি নিয়ে সবচেয়ে বেশি আগ্রহী ছিলেন। এ-ই স্বীকৃতি মুক্তিযুদ্ধে এনে দিয়েছিলো বাড়তি প্রেরণা।
তিনি আরও বলেন- সেই দিন ভারতের লোকসভায় দাঁড়িয়ে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী বলেছিলেন ‘স্বাধীনতা আন্দোলনের ইতিহাসে বিশাল বাঁধার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের জনগণের সংগ্রাম এক নতুন অধ্যায় রচনা করেছে। সতর্কতার সঙ্গে বিবেচনা করার পর ভারত বাংলাদেশকে স্বীকৃতি দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’ ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী’র বক্তব্য শেষ না হতেই ভারতের সংসদ সদস্যদের হর্ষধ্বনি ‘জয় বাংলাদেশ’ ধ্বনিতে ফেটে পড়ে। এসময় কাজী ওয়াশিম’র সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন- ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ সেন্টারের ভাইস প্রেসিডেন্ট মিনহাজুুল ইসলাম মিনহাজ, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক কুমার কল্যাণ, ঢাকা উত্তর এর সভাপতি আনিস মাহমুদ, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক জীবন কুমার, সাধারণ সম্পাদক আলী আবরার, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মোঃ রাজ্জাক, ঢাকা মহানগরের সমন্বয়ক ইকবাল বাহার, সহ-সমন্বয়ক নুরে আলম ওসমানী, সহ প্রচার সম্পাদক টি. আই. এস. বিউটি, সাবেক জেলা পরিষদের সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুম, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইবিএফসি এর সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিকী, সাংগঠনিক সম্পাদক ইকবাল শেখ, কাজী ওয়াসীম সহ প্রমুখ।

আপনার সামাজিক মিডিয়া এই পোস্ট শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরো খবর

নামাজের সময়সূচী

  • ফজর
  • যোহর
  • আছর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যোদয়
  • ৩:৫২
  • ১১:৫৮
  • ৪:৩৩
  • ৬:৪০
  • ৮:০৩
  • ৫:১৩
শিক্ষা তথ্য পত্রিকার কোন লেখা, ছবি বা ভিডিও কপি করা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।
ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: সাইবার প্লানেট বিডি