সোমবার , জুলাই ১৩ ২০২০
সংবাদ শিরোনাম
Home » সারাদেশ » খুলনা » ক্রীড়াবিদ-সংগঠকদের পাশে নড়াইলের এমপি মাশরাফী!! 

ক্রীড়াবিদ-সংগঠকদের পাশে নড়াইলের এমপি মাশরাফী!! 

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধিঃ পরিবারে উপার্জনক্ষম কেউ না থাকায় সুলতানার মা মানুষের বাড়িতে কাজ করে সংসার আর স্বামীর চিকিৎসার খরচ চালান। দরিদ্র পরিবারের সন্তান সুলতানা পিতার অনুপ্রেরণায় স্বপ্নজয়ের লড়াইয়ে প্রতিদিন নিজেকে এগিয়ে নিচ্ছেন,করছেন কঠোর পরিশ্রম।

উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধি জানান, নারী ফুটবল খেলায় যার দারুণ পারফরম্যান্সে প্রতিবার দল বিজয়ী হয়, খেলার মাঠ দাঁপিয়ে বেড়ানো সেই কৃতি ফুটবলার সুলতানা। সুলতানার বাবা ও একসময়ের নামকরা ফুটবল খেলোয়াড় ছিলেন। জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি এখন শয্যাশায়ী।

সামাজিক প্রতিবন্ধকতা আর দরিদ্রতার কাছে পরাজিত হয়ে স্বপ্ন ভাঙার মতো মেয়ে নয় সুলতানা। তাই সে একাই লড়ে যাচ্ছে তাঁর স্বপ্নজয়ের পথে। প্রতীকী চরিত্র সুলতানার মতো ২৮ জন খেলোয়াড় নিয়ে নড়াইলে একটি নারী ফুটবল দল আছে যার সবাই দরিদ্র ঘরের সন্তান। তাদের মধ্যে অনেকেই বয়সভিত্তিক জাতীয় দলে খেলে নড়াইলের সুনাম কুড়িয়ে এনেছেন। জাতীয় দলের অধিনায়কত্বও করেছেন।

বঙ্গমাতা জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়ন দলের সদস্যও রয়েছে এদের কয়জন। প্রতীকী চরিত্র ফুটবলার সুলতানার মতো এমন গল্প আছে আমাদের দেশের অনেক খেলোয়াড়দের। নিজের কষ্ট, দুঃখ-দুর্দশার এই গল্পগুলোকে নিজের কাছে লুকিয়ে রেখে তারা প্রতিনিয়ত মাঠে মাঠে বিজয়ের গল্প লিখে চলেছেন দারুণ দাপটে। একজন খেলোয়াড়ের সংগ্রামী জীবনের পুরোটাই খুব ভালো করে জানেন ক্রিকেটার মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা।

তাইতো এবার নড়াইল জেলার তিন উপজেলার বর্তমান ও সাবেক ক্রীড়াবিদ, ক্রীড়া সংগঠক ও ক্রীড়ার সাথে সংশ্লিষ্টজন যারা মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাবে কষ্টে আছেন তাদের পরিবারের নিকট শুভেচ্ছা উপহার পাঠাচ্ছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক এই সফল কাপ্তান। সংসদ সদস্য হিসেবে তিনি তার দায়িত্ব পালন করছেন, একের পর এক সমাজের বিভিন্ন স্তরের দরিদ্র মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছেন। তবে মাশরাফীর বড় পরিচয় তো তিনি একজন খেলোয়াড়। তাই নড়াইলের ক্রীড়াঙ্গনের মানুষদের প্রত্যাশা তাঁর প্রতি একটু বেশি থাকবে, এটাই স্বাভাবিক।

আজ সকালে জেলা ক্রীড়া সংস্থার নিকট এক হাজার প্যাকেট শুভেচ্ছা উপহার হস্তান্তর করেন মাশরাফীর গর্বিত পিতা ও বিশিষ্ট সমাজসেবক গোলাম মোর্ত্তজা স্বপন। উল্লেখ্য, পদাধিকারবলে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা ও জেষ্ঠ্য সহ-সভাপতি সুযোগ্য পুলিশ সুপার মোঃ জসীমউদ্দিন পিপিএম (বার)।

কাবাডি, ক্রিকেট, ফুটবল, ভলিবল, হকি, ব্যাডমিন্টনসহ সাবেক-বর্তমান সকল খেলোয়াড় যারা করোনার প্রভাবে সমস্যায় আছেন তাদের মাঝে জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও সকল কোচদের সমন্বয়ে গঠিত কমিটির মাধ্যমে এই শুভেচ্ছা উপহার পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। গোপনে এই শুভেচ্ছা উপহার দিতে ও ছবি না তুলতে জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও সংশ্লিষ্টদের প্রতি বিশেষ অনুরোধ জানিয়েছেন সাংসদ মাশরাফী।

ক্রীড়াবিদদের সম্মানের কথা বিবেচনায় নিয়ে নীরবে-নিভৃতে একে অপরের পাশে দাঁড়াতে সকলকে অনুরোধ করেছেন ক্যাপ্টেন ফ্যান্টাসটিক। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে অনেক খেলোয়াড় মানুষের পাশে দাড়াচ্ছেন। আমাদের নড়াইলের অনেক ক্রীড়াবিদও মানুষকে সহযোগিতা করছেন।

ক্রিকেটার মাশরাফী নড়াইল জেলার সকলের গর্ব ও অহংকারের নাম। তার নির্বাচনী এলাকায় শুধু নয় ক্রিকেটার মাশরাফীর এই শুভেচ্ছা উপহার গোটা নড়াইল জেলার ক্রীড়াঙ্গনের সকল অস্বচ্ছল খেলোয়াড়দের দেবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। উল্লেখ্য, এই ১০০০ শুভেচ্ছা উপহার মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাকে দিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)বিসিবি’র পক্ষ থেকে এগুলো তাঁর ঢাকার বাসায় পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশের ক্রিকেটের কিংবদন্তি অধিনায়ক যেহেতু এখন জন প্রতিনিধি তাই তাঁর জন্য এই উপহার পাঠিয়েছে বিসিবি। তাৎক্ষণিকভাবে মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা বিসিবি’র এই উপহার নড়াইলের ত্রীড়াঙ্গনের অস্বচ্ছল খেলোয়াড়দের মাঝে বিতরণের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন। নড়াইল জেলার ক্রীড়াঙ্গন তথা ক্রীড়ামোদী নড়াইল জেলার জনসাধারণের পক্ষ থেকে বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানাই ক্রীড়ামোদী প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে, ধন্যবাদ জানাই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ( বিসিবি)কে ও আমাদের মানবিক সাংসদ মাশরাফী বিন মোর্ত্তজাকে।উজ্জ্বল রায় নড়াইল জেলা প্রতিনিধি।

আরও সংবাদ

শার্শায় পেনসনের টাকা না পেয়ে, শিক্ষকের মৃত্যু

ইকরামুল ইসলাম, যশোর প্রতিনিধিঃ যশোরের শার্শায় পেনসনের টাকা না পেয়ে আইন উদ্দীন (৬২) নামের অবসরপ্রাপ্ত …