শনিবার , সেপ্টেম্বর ১৯ ২০২০
সংবাদ শিরোনাম
Home » জাতীয় » ৯০৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ

৯০৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে শাস্তির সুপারিশ

মো: শাহাদাত হোসাইন শিমুল, শিক্ষা বিষয়ক প্রতিনিধি- দ্বিতীয় চক্রের শিক্ষক নিয়োগে বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সুপারিশ পেয়েও যোগদান করতে পারেননি অনেক প্রার্থী। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শূন্যপদ না থাকলেও প্রতিষ্ঠান কর্তৃক ভুল চাহিদা দেয়ার ফলে অনেকে সুপারিশ পাওয়া প্রার্থীদের অনেক প্রতিষ্ঠানে যোগদান করতে দেয়া হয়নি আবার এমন জটিলতায় অনেক প্রার্থী যোগদান ও করেননি। এছাড়া শূন্য পদের ভুল চাহিদার বলি হয়ে এমপিওভুক্ত হতে পারছেন না অনেক শিক্ষক।

এসব জটিলতার জন্য দায়ী এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ভুল চাহিদা দেয়া ৯০৭টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তথ্য সংগ্রহ করা হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান ভুল তথ্য দেয়ায় ১ হাজার ১৭৩জন প্রার্থী জটিলতায় পড়েছেন।

জানা গেছে, শূন্যপদের কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে তা জানাতে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর এবং এনটিআরসিএকে বলেছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। সে প্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকা তৈরি করা হয়েছে।

এর আগে ভুল চাহিদা দেয়া ৯০৭টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের জন্য ১ হাজার ১৭৩ জন প্রার্থী জটিলতায় পড়েছিলেন। এদের মধ্যে ৩২টি প্রতিষ্ঠান এমপিও পদ নন-এমপিও ঘোষণা করেছেন। এজন্য ৩৫জন প্রার্থী এমপিওভুক্ত হতে পারেননি। তালিকাটি শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরে পাঠানো হয়েছে।

গত ৯ জুন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনির সভাপতিত্বে এনটিআরসিএর বিভিন্ন সমস্যা নিয়ে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শূন্যপদ না থাকা সত্ত্বেও ভুল চাহিদা দেয়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

আইনগত ব্যবস্থা নিতে প্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকা প্রস্তুত করতে বলা হয় শিক্ষা অধিদপ্তর ও এনটিআরসিএকে। গত ৩ আগস্ট এনটিআরসিএ এবং মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের চিঠি পাঠিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোর তালিকা পাঠাতে বলেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আরও সংবাদ

শেখ রেহানার ৬৫ তম জন্মদিন

সেলিম রেজা, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধিঃ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ কন্যা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ …