+8801711204697

গলাচিপায় শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধারের ঘটনায় গ্রেফতার -২

শিক্ষা তথ্য June 30, 2022

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ-পটুয়াখালীর গলাচিপায় নিখোঁজের তিনদিন পর আফসানা আক্তার মিম (১৩) নামের অষ্টম শ্রেণীতে পড়ুয়া এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করেছে গলাচিপা থানা পুলিশ। বুধবার সকাল ৯ টায় উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সিহি সুহরীর ২য় খন্ড ও আমখোলা ইউনিয়নের মুশুরীকাঠী স্লুইসগেট সংলগ্ন এলাকার জাফর আহম্মেদ খোকন এর বসত বাড়ির পূর্ব পাশের একটি ডোবা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। মৃত মিম ওই এলাকার কৃষক হুমায়ুন সিকদারের মেয়ে। সে সুহরী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। গলাচিপা থানা ও মৃতের পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত ২৬ জুন রোববার রাতে আসামি রানী বেগম মৃত আফসানা আক্তার মিমকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে যায়। এসময় তার মা নানা বাড়িতে ছিলো এবং তার বাবা অসুস্থ থাকায় ঘরে ঘুমিয়ে ছিলো। পরে গত দুইদিন তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও পাওয়া যায়নি। মৃতের মা বলেন আসামি রানী বেগমের কাছে মেয়ের কথা জানতে চাইলে তিনি জানেন না বলে জানান। গত ২৯ জুন বুধবার সকালে স্থানীয়রা বাড়ির উত্তর পার্শ্ববর্তী রাস্তার পশ্চিম পাশের ডোবায় আফসানা আক্তার মিম এর মরদেহ কচুরিপানা মধ্যে ভাসমান অবস্থায় দেখতে পায় এবং সড়কের পূর্ব পাশে মৃতের জামাকাপড় পরে থাকতে দেখা যায়। এবিষয়ে মৃতের মা রেখা বেগম (কনা) গলাচিপা থানার একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এবিষয়ে গলাচিপা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এম আর শওকত আনোয়ার ইসলাম জানান, আমরা সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করি এবং ময়নাতদন্তের জন্য পটুয়াখালী মর্গে প্রেরণ করেছি। মৃত্যুর আসল কারণ উদঘাটনে তদন্ত প্রক্রিয়া অব্যাহত রয়েছে। রেখা বেগম বাদী হয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন এবং ইতি মধ্যে আমরা কালাম গাজী ও তার স্ত্রী রানী বেগমকে গ্রেফতার করেছি। তাদেরকে আদালতে প্রেরণ করবো এবং জিজ্ঞাসাবাদে রিমান্ডের জন্য আবেদন করবো।

Share This