+8801711204697

গলাচিপায় স্বামীর বিরুদ্ধে স্ত্রীর যৌতুক মামলা

শিক্ষা তথ্য April 06, 2022

গলাচিপা প্রতিনিধিঃ- পটুয়াখালী গলাচিপায় স্বামীর বিরুদ্ধে দুই লক্ষ টাকা যৌতুক দাবির অভিযোগে আদালতে মামলা করেছে স্ত্রী নিলুফা বেগম। মামলার সূত্র মতে জানা যায়, পটুয়াখালী গলাচিপা উপজেলার ২নং গোলখালী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের ছোটগাবুয়া (বদর পুর) গ্রামের মৃত্যু খালেক প্যাদার ছেলে মোঃ মস্তফা প্যাদা (৩০) গত (১২ ডিসেম্বর ২০১৪) ইংরেজি তারিখে ইসলামী শরিয়ত ও রেজিস্ট্রি কাবিন মূলে একই ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের চর বাদুরা (নলুয়াবাগী) গ্রামের শাহ আলম হাওলাদারের মেয়ে নিলুফা বেগম (২৬) কে বিয়ে করেন। বিয়ের সময় নিলুফার বাবা একলক্ষ পঁচিশ হাজার টাকা মূল্যের একটি প্লাটিনা মটর সাইকেল, স্বর্নলংকার, আসবাবপত্র, পোষাক পরিচ্ছদ সহ দুই লক্ষ পঞ্চাশ হাজার টাকার উপহার সামগ্রী দিয়ে সামাজিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মেয়েকে স্বামীর বাড়ি উঠিয়ে দেয়।

কিছুদিন পর মস্তফা প্যাদা স্ত্রী নিলুফাকে তার বাবার কাছ থেকে আরও দুই লক্ষ টাকা যৌতুক নিয়ে আসতে বলে। কিন্তু নিলুফার বাবা এত টাকা দিতে না পাড়ায় গত ১ মার্চ ২০২২ ইংরেজি তারিখ বেলা ২টার দিকে ৭ বছরের শিশু সন্তান ইয়াছিনকে সহ নিলুফাকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেয়।

এ ঘটনায় স্ত্রী নিলুফা বেগম বাদী হয়ে গত ৩ এপ্রিল ২০২২ তারিখে স্বামী মস্তফা প্যাদাকে প্রধান আসামী করে ৪ জনের নামে গলাচিপা উপজেলা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে যৌতুক নিরোধ আইনের ৩ ধারায় একটি মামলা করেন, যাহার মামলা নম্বর-সি.আর-২১১/২০২২ইং। মামলায় অভিযুক্ত স্বামী মস্তফা প্যাদার বক্তব্য নিতে একাধিক বার মোবাইল ফোনে যোগযোগ করা হলেও তাহার বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি। এবিষয়ে ২ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মোঃ রবিউল মৃধা বলেন এই ঘটনায় মামলা হওয়ার আগে মেয়ের পক্ষ আমার কাছে বলছে, বিষয়টা নিয়ে আমি একাধিক বার মস্তফার বড় ভাই মনিরের সাথে কথা বলছি, মনির অনেকবার সমাধানে বসার কথা বলে অনেক ঘুরাঘুরি করছে, এখন পর্যন্ত কোনো সমাধানে বসে নাই, ওরা এভাবেই দীর্ঘদিন এই মেয়ের পরিবারকে বিভিন্ন টালবাহানায় ঘেরাচ্ছে, এই সমস্যার একটা সমাধান হওয়া উচিত।

Share This